মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর ২০১৯ ২৮ কার্তিক ১৪২৬
 
সারাবাংলা
গলিতে পড়ে ছিল ফুটফুটে শিশুটি
গলিতে পড়ে ছিল ফুটফুটে শিশুটি





পঞ্চগড় প্রতিনিধি
Saturday, Oct 19, 2019, 12:59 am
Update: 19.10.2019, 1:01:28 am
 @palabadalnet

পঞ্চগড়: পঞ্চগড়ে এক মাস বয়সী এক কন্যাশিশুকে ফেলে রেখে উধাও হয়েছেন তার মা। বৃহস্পতিবার রাতে জেলা শহরের কামাতপাড়া মহল্লার একটি গলি থেকে ফুটফুটে শিশুটিকে উদ্ধারের পর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শিশুটিকে তার মা দত্তক দিতে না পেরে সেখানে রেখে পালিয়ে গেছেন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। শিশুটি সুস্থ রয়েছে বলে চিকিৎসক জানিয়েছেন। খবর পেয়ে রাতেই জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইউসুফ আলী, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম হাসপাতালে দেখতে যান। পরে তারা কামাতপাড়া মহল্লার পেয়ারা বেগমসহ শিশুটির নানাবাড়ির সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন এবং শিশুটির মায়ের খোঁজ করেন। বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত শিশুটির মায়ের কোনো খোঁজ পায়নি পুলিশ।

এ দিকে খবর পেয়ে অনেকেই শিশুটিকে দত্তক নিতে ভিড় করেন হাসপাতালে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, পঞ্চগড় উপজেলা সদরের অমরখানার ভিতরগর এলাকার গৃহবধূ রিমু আক্তার দুই বছর আগে পরকীয়ার জেরে দিনাজপুরের পার্বতীপুর এলাকার এক ট্রাকচালকের সঙ্গে পালিয়ে যান। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ওই গৃহবধূ তার নানাবাড়ি জেলা শহরের কামাতপাড়া এলাকায় এসে পেয়ারা বেগম নামে আরেক গৃহবধূকে তার এক মাস বয়সী কন্যাশিশুটিকে দত্তক নিতে বলেন। এতে পেয়ারা বেগম অস্বীকৃতি জানালে তিনি একটি গলিতে শিশুটিকে রেখে পালিয়ে যান। রাতে পরিত্যক্ত অবস্থায় শিশুটিকে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা সদর থানা পুলিশকে খবর দেন।

পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক সিরাজ উদ্দোলা পলিন বলেন, শিশুটিকে হাসপাতালের বিশেষ শিশু পরিচর্চা কেন্দ্রে রাখা হয়েছে। সে সুস্থ রয়েছে।

শিশুটির মা রিমু আক্তারের মামা মো. মুক্তা বলেন, আমরাও তাকে খোঁজ করছি। কিন্তু সে কোথায় আছে তা জানি না।

গৃহবধূ পেয়ারা বেগম বলেন, সন্ধ্যায় রিমু আক্তার তাদের বাসায় এসে শিশুটিকে দত্তক নিতে বলেন। কিন্তু তিনি রাজি হননি। পরে জানতে পারেন শিশুটি রেখে সে পালিয়ে গেছে।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইউসুফ আলী বলেন, শিশুটিকে বর্তমানে হাসপাতালেই চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে রাখা হয়েছে। সেখানে দু'জন নারী পুলিশও রয়েছেন। শিশুটির মায়ের পরিচয় পাওয়া গেছে। তবে তিনি কোথায় আছেন, তা জানা যায়নি।

জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, কোনো মা যদি নিরাপত্তার অভাবে শিশুকে এভাবে ফেলে যান, তা খুবই দুঃখজনক। শিশুটির জন্য যা করা দরকার, আমরা তা করার চেষ্টা করব।

পালাবদল/এমএম


  এই বিভাগের আরো খবর  
  সর্বশেষ খবর  
  সবচেয়ে বেশি পঠিত  


Copyright © 2019
All rights reserved
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]