বৃহস্পতিবার ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ৮ ফাল্গুন ১৪২৬
 
সারাবাংলা
গির্জার কর্তৃত্ব নিয়ে দু’পক্ষ মুখোমুখি
গির্জার কর্তৃত্ব নিয়ে দু’পক্ষ মুখোমুখি





বরিশাল ব্যুরো
Sunday, Jan 19, 2020, 10:41 pm
Update: 19.01.2020, 10:43:15 pm
 @palabadalnet

বরিশাল: উজিরপুরে একটি গির্জার দখল নিয়ে খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের দু'পক্ষ মুখোমুখি অবস্থান নিয়েছে। হামলা-পাল্টা হামলায় প্রায়ই সেখানে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটছে। গির্জা কম্পাউন্ডের ভেতরে অবস্থান নেওয়া খ্রিষ্টানদের দাবি, তাদের সম্প্রদায়েরই একটি পক্ষ গির্জার জমি দখল করতে একের পর এক হামলা চালাচ্ছে। এতে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন যাজকসহ অন্যরা। অন্যপক্ষের দাবি, যাজকসহ একটি পক্ষ চার্চের নিয়ন্ত্রণ কুক্ষিগত করে রাখায় এ সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে।

উপজেলার গুঠিয়া ইউনিয়নের বৈরকাঠি গ্রামে প্রায় ৩ একর জমির ওপর চন্দ্রকান্ত মেমোরিয়াল চার্চের অবস্থান। ১৯৭৪ সালে স্থাপিত এ চার্চের যাজক ফিলিপ বিশ্বাস বলেন, প্রয়াত হৃদয় রঞ্জন সমদ্দার ধর্ম প্রচারকদের রাতযাপন ও আহার গ্রহণের উদ্দেশ্যে চার্চটি প্রতিষ্ঠা করেন। এটি দেশে খ্রিষ্টানদের মূল তিনটি ধর্মীয় কেন্দ্রের একটি। যিনি ধর্ম প্রচারক, বিয়ে-সংসার থেকে দূরে থেকে 'একমাত্র যিশুর প্রেমে সহভাগিতামণ্ডলীর সম্পূর্ণ পৈরিতিক ও ভাববাদিক শিক্ষার ভিত্তিমূলে' চলবেন, একমাত্র তিনিই এ চার্চে থাকতে পারবেন।

ফিলিপ বিশ্বাসের অভিযোগ, এ বিশ্বাস ও শিক্ষা থেকে বেরিয়ে ভ্রান্তপথে চলে যাওয়া একটি চক্র চার্চকে ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে রূপ দেওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে। তারা চার্চ দখলের চেষ্টা করছে। সেখানে থাকা ১০ জন যাজক চলে যাওয়ার হুমকি দিচ্ছে। এ নিয়ে মামলা চলমান অবস্থায় আদালতের আদেশ অমান্য করে ওই পক্ষ চার্চের মধ্যে সাইনবোর্ড ঝুলিয়েছে। বিষয়টি ধর্ম মন্ত্রণালয়ে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। বহিরাগতদের মদদে খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বী মিল্টন সমদ্দার, লিটন সমদ্দার, সৈকত সমদ্দার, অসীম সমদ্দার কুডু, তিমন সমদ্দার, দ্বিজেন সমদ্দার ও বাপ্পি সরকার এ করছেন।

তবে মিল্টন সমদ্দার এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমি চার্চ প্রতিষ্ঠাতার ভাইয়ের ছেলে। আমাদের চার্চে ঢুকতে দেওয়া হয় না। আমাদের বাড়ি থেকে চার্চে ঢোকার গেটটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তার দাবি, গির্জায় মাত্র একজন যাজক। অন্যরা যাজক পরিচয়ে চলেন। তারা গির্জার জমি দখল করতে এসব করছেন। 

সাইনবোর্ড লাগানোর বিষয়ে মিল্টন বলেন, আদালতে রিটের আদেশ তার পক্ষে যাওয়ায় তিনি সাইনবোর্ড ঝুলিয়েছেন।

গুঠিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ডা. দেলোয়ার হোসেন বলেন, চার্চের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে ভেতরে-বাইরে থাকা খ্রিষ্টানদের দুটি পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছে। একাধিকবার সালিশ করেও বিষয়টি সুরাহা হয়নি। অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি মোকাবিলায় সতর্ক আছেন বলে চেয়ারম্যান দাবি করেন।

পালাবদল/এমএম


  এই বিভাগের আরো খবর  
  সর্বশেষ খবর  
  সবচেয়ে বেশি পঠিত  


Copyright © 2019
All rights reserved
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]