সারাবাংলা
চুয়াডাঙ্গা সীমান্তে বাংলাদেশিকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে বিএসএফ
চুয়াডাঙ্গা সীমান্তে বাংলাদেশিকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে বিএসএফ





চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি
Tuesday, Nov 26, 2019, 9:39 pm
Update: 26.11.2019, 9:45:44 pm
 @palabadalnet

চুয়াডাঙ্গা: দামুড়হুদা উপজেলার চাকুলিয়া গ্রামের ভারত সীমান্তের শুন্য রেখায় ভারতীয়দের পিটুনি ও অস্ত্রাঘাতে আহত এক বাংলাদেশি গরুর রাখাল মারা গেছে। আজ মঙ্গলবার ভোরে ঘটনাটি ঘটে বলে চুয়াডাঙ্গা বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন জানায়।

চুয়াডাঙ্গা-৬ ব্যাটালিয়ন অধীনে ঠাকুরপুর বিওপি এলাকার চাকুলিয়া গ্রামবাসী ও সেখানে কর্মরত একটি গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এত কড়াকড়ি সীমান্ত নজরদারীর মধ্য দিয়ে চিহ্নিত কয়েকজন চোরাকারবারী সীমান্ত গলিয়ে প্রতিদিনই অবৈধভাবে ভারতের অভ্যন্তরে ঢুকে গরু ও ফেন্সিডিল পাচার করে। রাতের আঁধারে তাদের পদচারনার কারনে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলার ভীমপুর থানার হুদাপাড়া গ্রামবাসীর ফসলের ক্ষেত নষ্ট হয়ে যায়। ক্ষেতের ফসল চোরাকারবারীদের পদচারনায় নষ্ট হওয়ার ওই গ্রামবাসী বাংলাদেশি চোরাকারবারীদের কাছ থেকে ক্ষতিপুরণ পেয়ে থাকে। বেশ কিছু দিন ধরে ওই ক্ষতিপুরন নিয়ে চাকুলিয়া গ্রামের মালোপাড়ার আবু তাহেরের ছেলে চিহ্নিত চোরাকারবারী আব্দুল গনি (৩০), একই পাড়ার ইসলাম ঘটকের ছেলে বাবলু (২২) ও জুলফিকারের ছেলে মিকার (৩৫) সঙ্গে তাদের বিরোধ চলে আসছিল।  

গত সোমবার দিনগত রাতে কোন এক সময় তারা অবৈধভাবে ভারতের অভ্যন্তরে চোরাকারবারের জন্য গেলে সেখানকার গ্রামবাসী তাদের ওপর লাঠি ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এ সময় বাবলু ও মিকা পালিয়ে নিরাপদ আশ্রয়ে গেলেও আব্দুল গনি ভারতীয় গ্রামবাসীর রোষে পড়ে। তাকে মারাত্বক আহত অবস্থায় সীমান্তের ৮৭ নম্বর প্রধান খুঁটির দুদেশের শুন্য রেখা বরাবর তারা ফেলে রেখে যায়। ঘটনাটি কাউকে না জানিয়ে মঙ্গলবার আনুমানিক ভোর ৫টার দিকে বাবলু ও মিকা, মারাত্বক আহত আব্দুল গনিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। 

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগ থেকে জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে আব্দুল গনিকে সেখানে আনা হলে কর্তব্য চিকিৎসক সোহবার হোসেন জানান, তিনি হাসপাতালে নেয়ার আগেই মারা গেছেন। ময়না তদন্তের জন্য সেখান থেকে লাশ মর্গে পাঠানো হয়। 

চুয়াডাঙ্গা-৬ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের পরিচালক মোহাম্মদ খালেকুজ্জামান পিএসসি জানান, কিছু গণমাধ্যমে সীমান্তবর্তী চাকুলিয়া গ্রামের চিহ্নিত চোরাকারবারী আব্দুল গনিকে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে যে খবর প্রচার হচ্ছে তা ঠিক নয়। প্রাথমিকভাবে তদন্ত করে জানা গেছে, সেখানকার গ্রামবাসীর আক্রান্তের শিকার হয়ে সে মারা গেছে। মৃত গনির বিরুদ্ধে কিছু দিন আগে বিজিবি অবৈধ ভারতীয় গরু ও ফেন্সিডিল চোরাচালানের দায়ে মামলা করেছিলো। তাকে অবৈধ ভারতীয় গরুসহ বিজিবি আটক করে মামলা দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। তবে ঘটনাটি তারা সম্পূর্ন চেপে রেখে ছিল। চোরাকারবারী গনি মারা যাওয়ার পর সেটা আমরা জানতে পারি। এ বিষয়ে আরো তদন্ত চলছে, তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পালাবদল/এমএম


  এই বিভাগের আরো খবর  
  সর্বশেষ খবর  
  সবচেয়ে বেশি পঠিত  


Copyright © 2019
All rights reserved
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]