রাজনীতি
এই নির্বাচন কমিশন দেশের সবচেয়ে নিকৃষ্ট প্রতিষ্ঠান: ফখরুল
এই নির্বাচন কমিশন দেশের সবচেয়ে নিকৃষ্ট প্রতিষ্ঠান: ফখরুল





নিজস্ব প্রতিবেদক
Monday, Jan 11, 2021, 2:50 pm
Update: 11.01.2021, 2:53:36 pm
 @palabadalnet

ঢাকা: বর্তমান নির্বাচন কমিশন (ইসি) বাংলাদেশের সবচেয়ে ঘৃণিত এবং নিকৃষ্ট প্রতিষ্ঠান বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

ইসির পদত্যাগ দাবিতে সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি আয়োজিত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ এমন মন্তব্য করেন তিনি।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আমরা বারবার এই নির্বাচন কমিশনের পদত্যাগ জানিয়েছি। বাংলাদেশে যারা বুদ্ধিজীবী আছেন, যারা দেশের রাজনীতি পর্যবেক্ষণ করেন এবং বিদেশের যারা বাংলাদেশের রাজনীতি পর্যবেক্ষণ করেন, তারা বলেছেন, এই নির্বাচন কমিশন থাকাকালে বাংলাদেশ কখনোই অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়।

তিনি বলেন, আমরা প্রথম থেকেই বলে আসছি, এ নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয় আওয়ামী লীগের পূর্ণ সমর্থন নিয়ে। এই নির্বাচন কমিশন কখনোই সুষ্ঠুভাবে তাদের দায়িত্ব পালন করতে পারেনি। এ নির্বাচন কমিশন তাদের দায়িত্ব পালন করতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে।

এ সময় মির্জা ফখরুল বলেন, এই সরকার দেশে একটা লুটপাটের রাজত্ব তৈরি করেছে। আজকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এ দেশের মানুষের সকল আশা আকাঙ্ক্ষা ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা এই অনির্বাচিত সরকারকে পরিষ্কারভাবে বলতে চাই- এখনো সময় আছে পদত্যাগ করুন। না হয় দেশের সচেতন মানুষ আপনাদেরকে চলে যেতে বাধ্য করবে।

বিএনপি মহাসচিব আরও বলেন, আমি দেশের সকল রাজনৈতিক দলগুলোকে আহ্বান জানাচ্ছি আসুন আমরা আমাদের নিজেদের অধিকার রক্ষা করার জন্য, ভোটের অধিকার রক্ষা করার জন্য, দেশে থাকার জন্য এই সরকারকে হটানোর জন্য, আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলন শুরু করি।

তিনি আরও বলেন, জাতীয় নির্বাচনের মতো এখন স্থানীয় সরকার নির্বাচনগুলো একইভাবে তারা (সরকার) লুট করে নিয়ে যাচ্ছে। গতকাল গাজীপুরে আমাদের বিএনপির প্রার্থীসহ অনেকেই হামলার শিকার হয়েছেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত নির্বাচন কমিশন কিছুই করতে পারেনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, যখন ভোট চুরি করে নিয়ে যাওয়া হয়, তারপর প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে জিজ্ঞেস করলে উনি বলেন, সুষ্ঠু ভোট হয়েছে। আপনাদের যদি ন্যূনতম কোনো লজ্জা থাকে এখনই, এই মুহূর্তে পদত্যাগ করা উচিত।

এছাড়া তিনি বলেন, ২০০৭ সালের এই জানুয়ারি মাসের ১১ তারিখে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক চক্রান্তের মধ্য দিয়ে একটা অবৈধ ও বেআইনি তত্ত্বাবধায়ক সরকার গঠন করা হয়েছিল। তারা অত্যন্ত সুপরিকল্পিত ও সুচিন্তিতভাবে বাংলাদেশে বিরাজনীতিকরণের প্রক্রিয়াকে সম্পন্ন করেছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, সবচেয়ে কষ্টের বিষয় হচ্ছে- আজকে এই আওয়ামী লীগ সেই তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সঙ্গে যোগসাজশ করে একইভাবে দেশে বিরাজনীতিকরণের প্রক্রিয়া চালাচ্ছে। আজকে বিএনপির ২৫ লাখেরও বেশি নেতাকর্মী ও সমর্থকের বিরুদ্ধে মামলা।

তিনি বলেন, আজকে বাংলাদেশে গণতন্ত্রের পক্ষে যারা কথা বলেন, তাদের অনেককে গুম করে ফেলা হয়েছে। অসংখ্য মানুষকে হত্যা করা হয়েছে।

বিএনপি যুগ্ম-মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবিব-উন-নবী খান সোহেলের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল, যুবদলের সভাপতি সাইফুল ইসলাম নীরব, ঢাকা মহানগর উত্তর যুবদলের সভাপতি এসএম জাহাঙ্গীর, ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল, সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান আমিন, ইডেন কলেজ ছাত্রদলের সদস্য সচিব সানজিদা ইয়াসমিন তুলি প্রমুখ।

পালাবদল/এমএ


  এই বিভাগের আরো খবর  
  সর্বশেষ খবর  
  সবচেয়ে বেশি পঠিত  


Copyright © 2020
All rights reserved
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৫১, সিদ্ধেশ্বরী রোড, রমনা, ঢাকা-১২১৭
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৫১, সিদ্ধেশ্বরী রোড, রমনা, ঢাকা-১২১৭
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]