লাইফস্টাইল
হেঁচকি সামাল দেয়ার ১০টি অব্যর্থ উপায়
হেঁচকি সামাল দেয়ার ১০টি অব্যর্থ উপায়





পালাবদল ডেস্ক
Friday, Dec 25, 2020, 11:38 pm
 @palabadalnet

হেঁচকিতুলে হয়রান। হেঁচকি তুলতে গিয়ে অস্বস্তিতে পড়তে হয় অনেক সময়ই। সে কাজের জায়গায় হোক বা খাবার টেবিলে। উপস্থিত অন্যদের অস্বস্তি তো বটেই। একইসঙ্গে নিজেরও অসুস্থতা। তবে খুঁজলে সব সমস্যারই সমাধান পাওয়া যায়। হেঁচকিরও সমাধান রয়েছে। ঘরোয়া পদ্ধতিই ট্রাই করুন। উপকার পাবেন। আর যদি এতেও সমস্যা না দূর হয়, তাহলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

খেতে বসে হেঁচকি উঠলে আমাদের মা-দিাদীকে বলতে শোনা যেত, 'কেউ নিশ্চয়ই মনে মনে তোর নাম করছে'। মা-দাদীর কথা না-হয় বাদ রইল। চারপাশে হেঁচকি নিয়ে অন্ধবিশ্বাসের কমতি নেই। এমনও বলতে শোনা যায়, চুরি করে খেলে নাকি হেঁচকি ওঠে! অবশ্যই এর সঙ্গে বিজ্ঞানের কোনো যোগ নেই। তা হলে, হেঁচকি কেন ওঠে?

আমাদের বুকের খাঁচাকে পেট থেকে আলাদা করেছে একটি মাংসপিণ্ড। যার নাম ডায়াফ্রাম বা বক্ষচ্ছদা। শ্বাসপ্রশ্বাস প্রক্রিয়ায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে এই ডায়াফ্রামের। এই ডায়াফ্রামের আকস্মিক সংকোচনের কারণেই হেঁচকি বা হিক্কা শুরু হয়। প্রতিবার সংকোচনের ফলে ভোকাল কর্ড সাময়িক ভাবে বন্ধ হয়ে যায় বলে, হিক শব্দ তৈরি হয়। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে এটি কয়েক মিনিট স্থায়ী হয়। কিন্তু ৪৮ ঘণ্টার বেশি স্থায়ী হলে, ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

চট করে হেঁচকি দূর করতে কী করবেন?

১. এক চামচ মাখন বা চিনি খেতে পারেন। সমস্যা দ্রুত মিটে যাবে।

২. মুখের উপরের অংশটিতে ভালো করে মালিশ করুন। প্রয়োজনে গলার পেছনের অংশে হালকা মালিশ করুন। এতেও হেঁচকি কমবে।

৩. আপনার যদি এমন হঠাৎ করে হেঁচকি ওঠে, তাহলে লম্বা শ্বাস নিয়ে ভেতরে অনেকক্ষণ রাখুন। এ ক্ষেত্রে অবশ্যই নাক বন্ধ রাখুন। সমস্যা মিটে যাবে।

৪. দুই কানের ফুটোয় আঙুল দিয়ে চেপে ধরে রাখুন এমনভাবে যেন আপনি কিছুই শুনছেন না। অতিরিক্ত জোরে চেপে ধরবেন না । কিছুক্ষণ এভাবেই থাকুন। দেখবেন হেঁচকি আর উঠছে না।

৫. অনবরত হেঁচকি উঠলে জিভ বের করে আঙুল দিয়ে টেনে ধরে রাখুন কিছুক্ষণ। হেঁচকি থেমে যাবে। শুনতে অদ্ভুত শোনালেও এটা কিন্তু বেশ কার্যকর।

৬. লম্বা নিঃশ্বাস নিন। হাঁটুকে বুকের কাছাকাছি এনে জড়িয়ে ধরুন এবং কয়েক মিনিট এ ভাবেই থাকুন। এতে তাড়াতাড়ি উপকার পাওয়া যায়।

৭. হেঁচকি থামাতে কাজে লাগতে পারে একটি অ্যান্টাসিড ট্যাবলেট। এতে আছে প্রচুর ম্যাগনেশিয়াম, যা আপনার নার্ভগুলোকে শান্ত করে, ফলে হেঁচকি থেমে যাবে।

৮. লম্বা নিঃশ্বাস নিন। হাঁটুকে বুকের কাছাকাছি এনে জড়িয়ে ধরুন এবং কয়েক মিনিট এ ভাবেই থাকুন। এতে তাড়াতাড়ি উপকার পাওয়া যায়।

৯. হেঁচকি বন্ধ করতে লেবুর রসের সঙ্গে আদা কুচিও খেতে পারেন। এতে অল্প সময়ের মধ্যেই উপকার পাবেন।

১০. হেঁচকি বন্ধ করতে লেবুর রসের সঙ্গে আদা কুঁচিও খেতে পারেন। এতে অল্প সময়ের মধ্যেই উপকার পাবেন।

পালাবদল/এমএ


  এই বিভাগের আরো খবর  
  সর্বশেষ খবর  
  সবচেয়ে বেশি পঠিত  


Copyright © 2020
All rights reserved
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৫১, সিদ্ধেশ্বরী রোড, রমনা, ঢাকা-১২১৭
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৫১, সিদ্ধেশ্বরী রোড, রমনা, ঢাকা-১২১৭
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]