জাতীয়
করোনা ঝুঁকিতে দেশের দেড় কোটি প্রবীণ
করোনা ঝুঁকিতে দেশের দেড় কোটি প্রবীণ





Thursday, Oct 1, 2020, 11:35 am
Update: 01.10.2020, 11:41:38 am
 @palabadalnet

ঢাকা: করোনা পরিস্থিতিতে বড় ধরণের ঝুঁকির মুখে আছে দেশের একটি বড় জনগোষ্ঠী, যারা সমাজে প্রবীণ বলে পরিচিত। প্রবীণদের নিয়ে কাজ করেন এমন বিশেষজ্ঞদের মতে, দেশের এ বিশাল জনগোষ্ঠেীর চিকিৎসার ব্যাপারে সরকারের পক্ষ থেকে এখন জরুরি ভিত্তিতে নির্দেশনা পরিবার সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে পৌঁছে দিতে হবে। তা না হলে বিশাল প্রবীণ জনগগোষ্ঠী যারা আগামী প্রজন্মের পথপ্রদর্শক তাদের করুণ পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে। এর পাশাপাশি হাসপাতালগুলিতে থাকতে হবে সিনিয়র সিটিজেনদের ব্যাপারে সুৎচিকিৎসা পর্যাপ্ত ব্যবস্থা। 

আজ ১ অক্টোবর বিশ্ব প্রবীণ দিবস। বিশ্বের অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশেও এই দিবসটি পালন করা হচ্ছে বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে। ১৯৯০ সালে জাতিসংঘ প্রতিবছর পহেলা অক্টোবর আন্তর্জাতিক দিবস পালনের সিদ্ধান্ত নেয়। প্রবীণদের সুরক্ষা এবং অধিকার নিশ্চিতের পাশাপাশি বার্ধক্যের বিষয়ে বিশ্বব্যাপী গণসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ১৯৯১ সাল থেকে এ দিবসটি পালন করা শুরু হয়। এবারে এ দিবসের প্রতিপাদ্য বিষয় ‘Pandemics: Do they change how we address age and ageing’ বা ‘বৈশ্বিক মহামারির বার্তা, প্রবীণদের সেবায় নতুন মাত্রা’ । দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন সরকারি বেসকারি প্রতিষ্ঠানসহ প্রবীণ হিতৈষী সংঘ ও জরাবিজ্ঞান প্রতিষ্ঠানের (বাইগাম) পক্ষ থেকে বিভিন্ন কর্মসূচি নেয়া হয়েছে। 

বর্তমানে বাংলাদেশে প্রায় ১ কোটি ৫০ লাখ মানুষ প্রবীণ বা সিনিয়র সিটিজেন রয়েছে। আগামী ২০২৫ সাল নাগাদ প্রবীণদের সংখ্যা হবে প্রায় ১ কোটি ৮০ লাখ। ২০৫০ সালে প্রায় সাড়ে ৪ কোটি এবং ২০৬১ সালে প্রায় সাড়ে ৫ কোটি প্রবীণ জনগোষ্ঠী হবে।

দেশে এই মুহুর্তে জনসংখ্যার ৮ শতাংশ প্রবীণ। এসব প্রবীণ এমনতিইে এ বয়সে বিভিন্ন রোগ নিয়ে চলছেন। কারো রয়েছে ডায়াবেটিক, হৃদরোগ। কারো কিডনি বিকলতা, লিভার ও পাকস্থলীর নানা রোগ। এগুলি প্রবীণদের স্বাভাবিক সমস্যা। কিন্তু করোনা- এ বয়সের মানুষের জন্য আরেক সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে।  এই মুহূর্তে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর ঝুঁকিতে এই বিশাল সংখ্যক প্রবীণ জনগোষ্ঠী,যারা এমনিতেই অসুস্থ । 

বার্ধক্য বিশেষজ্ঞ ডা. মহসীন কবির লিমনের মতে, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর ঝুঁকিতে প্রবীণ জনগোষ্ঠী। আমার দেশের প্রবীণরা এখনও রয়েছে সবচেয়ে শঙ্কায়। দেশের বিশাল সংখ্যক প্রবীণ জনগোষ্ঠীকে করোনার হাত থেকে রক্ষা করতে এখনও আলাদা কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করার উদ্যোগ নেয়নি কেউ। তিনি বলেন, যে বাসায় প্রবীণ ব্যক্তি রয়েছেন সে বাসায় তাদের সম্পূর্ণ টয়লেটিং সুবিধাসহ আলাদা কক্ষে নিরাপদে রাখার ব্যবস্থা করা যেতে পারে। কক্ষটিতে ওই বাসায় বসবাসরত অন্যরাও পারত পক্ষে প্রবেশ করার প্রয়োজন নেই। বিশেষ প্রয়োজনে কেউ যদি প্রবীণদের রুমে প্রবেশ করতে হয় তবে অবশ্যই পরিষ্কার পোশাক, মুখে মাস্ক ও হাত জীবাণুমুক্ত করে প্রবেশ করতে হবে। 

ডা. মহসীন আরো বলেন, কোনো প্রবীণ যেকোনো সময় করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাসায় স্বাস্থ্যঝুঁকিতে পড়তে পারেন। তাই পরিবারের সদস্যদের অবশ্যই জরুরি অ্যাম্বুলেন্স সেবাসহ অন্যান্য সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের যোগাযোগের ঠিকানা সংগ্রহে রাখতে হবে। যেসব পরিবারে অসুস্থ শয্যাশায়ী প্রবীণ রয়েছেন তাদের করোনার প্রকোপ না কমা অবধি বিশেষভাবে নিরাপদে রাখার ব্যবস্থা করতে হবে। তাদের চলমান অসুখগুলো যেন আর না বাড়ে সেজন্য পরিবারের সদস্যদের বিশেষ খেয়াল রাখতে হবে। 

এদিকে প্রবীণ দিবস’২০২০ উপলক্ষে বাংলাদেশ প্রবীণ হিতৈষী সংঘ ও জরাবিজ্ঞান প্রতিষ্ঠানের (বাইগাম) সভাপতি  মুক্তিযোদ্ধা মো: আব্দুল মাননান পালাবদল ডটনেটকে জানান, ঢাকায় বাইগামের অধীনে ৫০ শয্যাবিশিষ্ট প্রবীণ হাসপাতাল, প্রবীণ নিবাস ও ইনস্টিটিউট অব জেরিয়েট্রিক মেডিসিন পরিচালিত হচ্ছে। এছাড়াও শাখাসমূহের মাধ্যমেও সারাদেশে প্রবীণদের স্বাস্থ্যসেবা কর্মসূচি ও সচেতনতামূলক কর্মসূচি চালু রয়েছে । 

তিনি আরো বলেন, প্রবীণদের স্বাস্থ্য ও চিকিৎসাসেবা উন্নয়নের পাশাপাশি সামাজিক নিরাপত্তার প্রতিটি খাতে বরাদ্দ বৃদ্ধি করা হয়েছে । এছাড়া প্রবীণ উন্নয়ন ফাউন্ডেশন গঠনের মাধ্যমে প্রবীণসেবা কর্মসূচি আরো গতিশীল করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে ।

তবে যত ধরণেরই ব্যবস্থার কথাই বলা হোক না কেন, করোনার এ মহামারি কালে সবচেয়ে ঝুঁকির মুখে প্রবীণরাই।

পালাবদল/এসএ


  এই বিভাগের আরো খবর  
  সর্বশেষ খবর  
  সবচেয়ে বেশি পঠিত  


Copyright © 2019
All rights reserved
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]