বিদেশ
ট্রাম্পকে চ্যালেঞ্জ করার দৌড়ে এগিয়ে গেলেন সান্ডার্স
ট্রাম্পকে চ্যালেঞ্জ করার দৌড়ে এগিয়ে গেলেন সান্ডার্স





রয়টার্স
Thursday, Feb 13, 2020, 12:34 am
Update: 13.02.2020, 12:34:41 am
 @palabadalnet

ডেমোক্র্যাটিক দলের প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী বার্নি সান্ডার্স

ডেমোক্র্যাটিক দলের প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী বার্নি সান্ডার্স

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটিক দলের কোনো নেতা প্রার্থী হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে পরাজিত করার ক্ষমতা রাখেন? সেই প্রশ্নের জবাব খুঁজতে একের পর এক রাজ্যে তারা সমর্থনের জন্য লড়াই করছেন৷ নানা বয়সের নানা আদর্শের নেতারা আপাতত নিজেদের সেরা প্রমাণ করার জন্য পরস্পরের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় ব্যস্ত৷ বিভিন্ন রাজ্যে ডেমোক্র্যাটিক দলের ভোটাররা সেরা প্রার্থী বেছে নিচ্ছেন৷

মঙ্গলবার নিউ হাম্পশায়ার রাজ্যে বাকিদের পেছনে ফেলে এগিয়ে গেলেন বার্নি সান্ডার্স৷ ‘প্রাইমারি' পর্বে সামান্য ব্যবধানে হলেও পিট বুটিজিজকে হারিয়ে তিনিই শীর্ষ স্থান দখল করলেন৷ উল্লেখ্য, বুটিজিজ আইওয়া রাজ্যের প্রাইমারিতে প্রথম স্থান দখল করেছিলেন৷ ২০১৬ সালে এই রাজ্যে প্রাইমারি পর্বে হিলারি ক্লিন্টনের বিরুদ্ধে সান্ডার্স ২২ পয়েন্টে এগিয়ে ছিলেন৷ এবার মাত্র দুই পয়েন্টে এগিয়ে থেকে তাকে সন্তুষ্ট থাকতে হলো৷ সান্ডার্স এদিন বলেন, ‘‘এই জয় ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমাপ্তির সূচনা৷''

প্রাক্তন ভাইস প্রেসিডেন্ট ও অভিজ্ঞ নেতা জো বাইডেন পর পর দুটি প্রাইমারিতেই খারাপ ফল করেছেন৷ মঙ্গলবার তাঁকে পঞ্চম স্থান পেয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে৷ আইওয়া রাজ্যে তিনি চতুর্থ স্থান পেয়েছিলেন৷ সবচেয়ে সম্ভাবনাময় প্রার্থী হিসেবে যাত্রা শুরু করেও তিনি এখনো যথেষ্ট সমর্থন আদায় করতে পারছেন না৷ ফেব্রুয়ারির শেষে সাউথ ক্যারোলাইনা ও ৩রা মার্চ ‘সুপার টিউজডে'-এর দিনে দক্ষিণের কয়েকটি রাজ্যের প্রাইমারিতেও ভালো ফল না করলে বাইডেনের পক্ষে দৌড়ে টিকে থাকা কঠিন হবে৷ তবে দক্ষিণে তিনি কৃষ্ণাঙ্গ ভোটারদের সমর্থনের আশা করছেন৷ মঙ্গলবারও বাইডেন বলেন, ‘‘শেষ কোথায়, দৌড় তো সবে শুরু হচ্ছে৷''

আর এক সম্ভাবনাময় প্রার্থী এলিজাবেথ ওয়ারেনও মঙ্গলবার খারাপ ফল করেছেন৷ তিন মাস আগেও নিউ হাম্পশায়ার রাজ্যে সমর্থনের বিচারে শীর্ষে থাকা সত্ত্বেও মঙ্গলবার তিনি চতুর্থ স্থানে নেমে গেলেন৷ ফলে তার প্রচার অভিযানের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন উঠছে৷ ২২শে ফেব্রুয়ারি নেভাদা ও ২৯শে ফেব্রুয়ারি সাউথ ক্যারোলাইনা রাজ্যে প্রাইমারি পর্বে তার জনপ্রিয়তার দিকে সবার নজর থাকবে৷ সান্ডার্স ও তিনি প্রকৃত বামপন্থি আদর্শে বিশ্বাসী বলে পরিচিত৷ 

‘সুপার টিউজডে'-র আগে পর্যন্ত এই দৌড় থেকে দূরে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নিউ ইয়র্ক শহরের প্রাক্তন মেয়র ও ধনকুবের মাইকেল ব্লুমবার্গ৷ টেলিভিশনে প্রচার অভিযানের পেছনে কোটি কোটি ডলার ব্যয় করে আপাতত তিনি নিজের অবস্থান পাকা করতে ব্যস্ত৷ মূলত ‘সুপার টিউজডে' পর্বের পর যে সব প্রার্থী টিকে থাকবেন, তাদের সঙ্গেই সরাসরি প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নামবেন তিনি৷ বিশেষ করে ক্যালিফোর্নিয়া ও টেক্সাসের মতো বড় রাজ্যে ভালো ফল করার আশা করছেন ব্লুমবার্গ৷

পালাবদল/এমএম


  এই বিভাগের আরো খবর  
  সর্বশেষ খবর  
  সবচেয়ে বেশি পঠিত  


Copyright © 2019
All rights reserved
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]