বুধবার ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ৭ ফাল্গুন ১৪২৬
 
চট্টগ্রাম সিটি
চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচন নিয়ে দ্বন্দ্বে না জড়ানোর আহ্বান নওফেলের
চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচন নিয়ে দ্বন্দ্বে না জড়ানোর আহ্বান নওফেলের





চট্টগ্রাম ব্যুরো
Saturday, Feb 8, 2020, 10:07 pm
Update: 08.02.2020, 10:10:48 pm
 @palabadalnet

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে মনোনয়ন পাওয়া নিয়ে দলের নেতাকর্মীদের কোন ধরনের দ্বন্দ্বে না জড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। 

শনিবার নগরীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় তিনি এই আহ্বান জানান। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়া কোনো নেতাই দলের জন্য অপরিহার্য নন এবং একমাত্র প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত।মন্তব্য করে তিনি বলেন, 'চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ চট্টগ্রাম জেলার মধ্যে সব থেকে শক্তিশালী সংগঠন। আমাদের মধ্যে অনেকে নির্বাচন করতে চাইবেন, স্বাভাবিক। কাউন্সিলর পদেও হয়তো সর্বোচ্চ চাইবেন। কিন্তু নির্বাচনের প্রাক্কালে কলিশন যেন না হয়। তফসিল ঘোষণা হয়ে যাবে, প্রচারণাও শুরু হবে। আমরা যেন সংযত থাকি।

উপমন্ত্রী নওফেল আরো বলেন, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের নির্বাচন আসছে। গণমাধ্যমে অনেক ধরনের আলোচনা-সমালোচনা আসবে। একজন আরেকজনের সম্পর্কে কথা বললেও আরও একটু বানিয়ে দেওয়া কিংবা না বললেও একটু লিখে দেওয়া, এগুলো কিন্তু হচ্ছে। আলোচনা-সমালোচনা এগুলো গণমাধ্যমের স্বাভাবিক কাজ। মেনেই আমাদের কাজ করতে হবে। কিন্তু এতে করে আমাদের মধ্যে কোনো ধরনের ভুল বোঝাবুঝি যেন না হয়।

আত্মঘাতী কর্মকাণ্ড থেকে দলের নেতাকর্মীদের বিরত থাকার আহ্বান জানিয়ে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, পরস্পর পরস্পরকে হেয় করার অপচেষ্টা বন্ধ করতে হবে। যদি তা করতে না পারি তাহলে দিন শেষে ক্ষতি হবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের। মতের ভিন্নতা যা-ই থাকুক আমরা কিন্তু দলীয় সংহতির রক্ষার্থে সকলকে আপন করে নিতে হবে।

এবারের সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের পাশাপাশি শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেলসহ আরো কয়েকজনকে নিয়েও আলোচনায় রয়েছে। যদিও বিভিন্ন সময় এই নির্বাচন নিয়ে নিজের অনাগ্রহের কথা তুলে ধরেন ব্যারিস্টার নওফেল। তারপরও দুই নেতার অনুসারিরা বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিবাদে জড়িয়ে পড়ছেন। এ নিয়ে দু'পক্ষের মধ্যে তিক্ততা বাড়ছে। শনিবার দলের বর্ধিত সভায় নওফেল যখন বক্তব্য রাখছিলেন তখন সেখানে ছিলেন না নাছির। নওফেল বক্তব্য শেষ করে চলে যাওয়ার সময় সভাস্থলে ঢুকছিলেন মেয়র নাছির। এ সময় অবশ্য তাদের দু'জনের মধ্যে কুশল বিনিময় হয়

মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত বর্ধিত সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন-মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নঈম উদ্দিন চৌধুরী, এডভোকেট সুনীল কুমার সরকার, এডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, খোরশেদ আলম সুজন, এম জহিরুল আলম দোভাষ, আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম. রেজাউল করিম চৌধুরী, এমএ রশীদ ও কোষাধ্যক্ষ আবদুচ ছালাম প্রমুখ।

পালাবদল/এমএম


  এই বিভাগের আরো খবর  
  সর্বশেষ খবর  
  সবচেয়ে বেশি পঠিত  


Copyright © 2019
All rights reserved
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]