শুক্রবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ৮ ফাল্গুন ১৪২৬
 
বিনোদন
বিবাহবহির্ভূত সন্তানে আক্ষেপ হচ্ছে নীনার
বিবাহবহির্ভূত সন্তানে আক্ষেপ হচ্ছে নীনার





টাইমস অব ইন্ডিয়া
Sunday, Jan 19, 2020, 5:09 pm
 @palabadalnet

মাসাবা ও নীনা গুপ্তা

মাসাবা ও নীনা গুপ্তা

ভিভ রিচার্ডসের প্রেমিকা তথা বলিউডের বিশিষ্ট অভিনেত্রী নীনা গুপ্তার স্বীকারোক্তি, অতীতের কোনো সিদ্ধান্ত বদলানোর সুযোগ পেলে তিনি বিবাহবহির্ভূত সন্তানধারণের সিদ্ধান্ত বদল করতেন।

অভিনেত্রীকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, অতীতের কোন সিদ্ধান্তকে তিনি বদলাতে চান? উত্তরে নীনার স্পষ্ট বক্তব্য, ‘বিয়ের বাইরে সন্তানধারণ না করলেই পারতাম। প্রত্যেক সন্তানের বাবা-মা দু’জনকেই প্রয়োজন।’ গলায় আক্ষেপই ধরা পড়েছে। নীনা বুঝিয়ে দিয়েছেন, তার ওই সিদ্ধান্ত ভুল ছিল। বছর দুয়েক আগে তিনি একবার বলেছিলেন, ‘আমি সব মহিলাকে বলতে চাই একটা কথা। যদি আপনি ভারতে থাকতে চান, সমাজে থাকতে চান, তা হলে আপনাকে বিয়ে করতেই হবে।’

আটের দশকে নীনা সম্পর্কে জড়ান ভিভের সঙ্গে। বহুচর্চিত রোমান্সের পর ১৯৮৯ সালে তাদের মেয়ে হয়। নাম রাখা হয় মাসাবা। ওই সময় সাহসী সিদ্ধান্তের জন্য অনেকে নীনাকে প্রশংসা করেন, পাশাপাশি সমালোচনাও কুড়ান তিনি।

মাসাবাকে ‘সিঙ্গল মাদার’ হিসেবেই বড় করে তোলা নীনা সিঙ্গল মাদারের কাছে বরাবরই উজ্জ্বল উদাহরণ। ষাট বছর বয়সে পৌঁছে তার সাম্প্রতিক স্বীকারোক্তিতে অনেকেই অবাক। নীনার সাম্প্রতিকতম ছবি ‘লাস্ট কালার’ ক’দিন আগে অস্কারের দৌড়ে জায়গা করে নিয়েছে।

ভিভের নিজের স্ত্রী মারিয়ম ছিলেন অ্যান্টিগায়। তাদের দুই ছেলে। প্রথম ছেলে মালির জন্ম ১৯৮৩ সালে। নীনাকে বিয়ে করেননি ভিভ। প্রথম দিকে নিয়মিত আসতেন ভারতে। মাসাবার জন্মানোর পর তাকে দেখেও যান। তারপর ধীরে ধীরে তার ভারতে আসাই কমে যায়। নীনা পরে বিয়ে করেন চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্ট বিবেক মেহরাকে।

ভিভের তুলনায় অনেক কড়া সমালোচনার শিকার হওয়া নীনা এদিন সাফ বলেছেন, ‘আমি মাসাবার সঙ্গে বরাবর সৎ ছিলাম। তাই আমাদের সম্পর্কে এর কোনো প্রভাব পড়েনি। কিন্তু আমি জানি ওকে ভুগতে হয়েছে’। নীনা নিজেও পরে মুম্বাই ছেড়ে চলে আসেন নয়া দিল্লিতে। তার স্বামী বিবেকও নয়া দিল্লির লোক। তারা বিয়ে করেন গোপনে নিউ ইয়র্কে। ২০০৮ সালে।

ফ্যাশন ডিজাইনার মাসাবা ২০১৫ সালে বিয়ে করেন পরিচালক মধু মান্তেনাকে। তারা সেপারেশনে ছিলেন ২০১৮ সাল থেকে। গত বছর ডিভোর্স ফাইল করেন। নীনা সে প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমি ওকে বলেছিলাম, ‘সোচ লো’। তবে ও যা সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তার প্রতি আমি শ্রদ্ধাশীল।’ নীনা অবশ্য মেনে নিয়েছেন, ফ্যাশন ডিজাইনার মেয়ের কাছে তিনি অনেক কিছু শিখেছেন। স্টাইল পাল্টেছেন অনেক। মাসাবার সঙ্গে যেমন ভিভের সম্পর্ক ভালো ছিল, তেমনই ভালো বিবেকের। তবু নিজের আক্ষেপের কথা সটান জানিয়ে দিলেন নীনা। - সংবাদসংস্থা

পালাবদল/এমএম




  এই বিভাগের আরো খবর  
  সর্বশেষ খবর  
  সবচেয়ে বেশি পঠিত  


Copyright © 2019
All rights reserved
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]