বৃহস্পতিবার ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ৮ ফাল্গুন ১৪২৬
 
দক্ষিণ এশিয়া
ভারতের উত্তরাখণ্ডের সমস্ত স্টেশন থেকে উর্দু মুছে ফেলার সিদ্ধান্ত
ভারতের উত্তরাখণ্ডের সমস্ত স্টেশন থেকে উর্দু মুছে ফেলার সিদ্ধান্ত





পালাবদল ডেস্ক
Sunday, Jan 19, 2020, 4:50 pm
 @palabadalnet

ভারতের উত্তরাখণ্ডে কোনো স্টেশনের সাইনবোর্ডে আর উর্দু লেখা হবে না। যা রয়েছে তা-ও মুছে ফেলা হবে। তার বদলে জায়গা করে নেবে সংস্কৃত। রেলমন্ত্রণালয় এবার এমনই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যার ফলে এবার থেকে রাজ্যের সমস্ত স্টেশনে হিন্দি, ইংরেজি এবং সংস্কৃতে লেখা বোর্ডই চোখে পড়বে।

রেলের ম্যানুয়াল অনুযায়ী, হিন্দি, ইংরেজি এবং সংশ্লিষ্ট রাজ্যের দ্বিতীয় ভাষাতেই সাইনবোর্ড লেখা উচিত। উত্তরাখণ্ডের দ্বিতীয় ভাষা যেহেতু সংস্কৃত, তাই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে রেল সূত্রে খবর।

কিন্তু এত বছর পর ভাষা পরিবর্তনের প্রয়োজন পড়ল কেন? নর্দার্ন রেলওয়ের জনসংযোগ আধিকারিক দীপক কুমার জানান, উত্তরপ্রদেশের দ্বিতীয় ভাষা উর্দু। উত্তরাখণ্ড যেহেতু উত্তরপ্রদেশের অংশ ছিল, তাই এত দিন তা-ই ব্যবহার করা হতো। সম্প্রতি এক নেতা ‘ভুল’ ধরিয়ে দেন। তাই ‘ভুল’ সংশোধনে করার তোড়জোড় চলছে।’’

এ ব্যাপারে সমস্ত আলোচনা হয়ে গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। দেহরাদুন, রুরকি এবং হরিদ্বারের হাত ধরেই এই বদল শুরু হবে বলে খবর। তবে এই কাজ সহজ হবে না বলে মত স্থানীয়দের। কারণ সংস্কৃতে লিখতে গেলে সমস্ত জায়গার নামের পিছনে একটি করে ‘ম’ যুক্ত হবে। সে ক্ষেত্রে দেহরাদূন হয়ে যাবে দেহরাদূনম, হরিদ্বার হয়ে যাবে হরিদ্বারম। এতে মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়াবে বলে আশঙ্কা।

২০১০ সালে সংস্কৃত উত্তরাখণ্ডের দ্বিতীয় ভাষার মর্যাদা পায়। সেইসময় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন বিজেপির রমেশ পোখরিয়াল নিশাঙ্ক। সংস্কৃতকে জনপ্রিয় করে তুলতেই এমন সিদ্ধান্ত নেন তিনি। উত্তরাখণ্ডের দেখাদেখি পরে হিমাচলপ্রদেশও একই পথে হাঁটে। এ বছর সংস্কৃতকে দ্বিতীয় ভাষার মর্যাদা দিয়েছে তারা। - সংবাদসংস্থা

পালাবদল/এমএম




  এই বিভাগের আরো খবর  
  সর্বশেষ খবর  
  সবচেয়ে বেশি পঠিত  


Copyright © 2019
All rights reserved
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]