শুক্রবার ১৫ নভেম্বর ২০১৯ ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
 
জাতীয়
ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’: উপকূলে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত
ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’: উপকূলে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত





নিজস্ব প্রতিবেদক
Saturday, Nov 9, 2019, 10:32 am
Update: 09.11.2019, 10:40:10 am
 @palabadalnet

যেসব এলাকা দিয়ে ঘুর্ণিঝড়টি যাবে সেখানে ভারি বৃষ্টিপাত হচ্ছে।

যেসব এলাকা দিয়ে ঘুর্ণিঝড়টি যাবে সেখানে ভারি বৃষ্টিপাত হচ্ছে।

ঢাকা: বাংলাদেশের উপকূলের দিকে অগ্রসর হওয়া প্রবল সাইক্লোন 'বুলবুলের' কারণে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড়টি আরো উত্তর দিকে অগ্রসর হয়েছে।

সকাল ছয়টা নাগাদ প্রবল ঘূর্ণিঝড়টি চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দর থেকে ৫২৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং মংলা সমুদ্র বন্দর থেকে ৩৫০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছে।

আজ সন্ধ্যা নাগাদ এই ঘূর্ণিঝড়টি বাংলাদেশের সুন্দরবনের নিকট দিয়ে খুলনা উপকূল অতিক্রম করতে পারে।

এই ঘূর্ণিঝড়ের ৭৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ১৩০ কিলোমিটার থাকবে, যেটি ঝড়ো হাওয়ার আকারে ১৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

মংলা এবং পায়রা সমুদ্র বন্দরের জন্য ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি করা হয়েছে।

উপকূলীয় জেলা ভোলা, বরিশাল, পটুয়াখালী, বরগুনা, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরায় দ্বীপ এবং চরসমূহ ১০ নম্বর বিপদ সংকেতের আওতায় থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এছাড়া চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, ফেনী, লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুরের দ্বীপ এবং চরসমূহের জন্য ৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি করা হয়েছে।

সমুদ্র বন্দরগুলোতে এরই মধ্যে পণ্য উঠা-নামা বন্ধ রয়েছে। সমুদ্রের ঢেউ স্বাভাবিকের চেয়ে আরো পাঁচ থেকে সাত ফুট পর্যন্ত উঁচু হতে পারে বলে আবহাওয়া অধিদপ্তর সতর্ক করে দিয়েছে।

এরই মধ্যে উপকূলীয় বিভিন্ন এলাকায় মাইকিং করে স্থানীয় এলাকাবাসীকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন উপজেলা পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তা থেকে শুরু করে এনজিও কর্মী, রোভার ও স্কাউট সদস্যরা।

শুধু প্রবল গতি নয়, ঝড়টির সঙ্গে রয়েছে বিশাল এক মেঘমালা। এর প্রভাবে দেশের উপকূলীয় জেলাগুলোয় গতকাল দুপুর থেকে বৃষ্টি হচ্ছে। রাজধানীসহ দেশের বেশির ভাগ এলাকার আকাশও মেঘে ঢাকা ছিল। ঝিরিঝিরি বৃষ্টিও হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড়ের কারণে স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৫ থেকে ৭ ফুট উঁচু জলোচ্ছ্বাস হতে পারে উপকূলীয় এলাকায়। এরই মধ্যে দেশের উপকূলের ১৪টি জেলাকে জলোচ্ছ্বাসের সতর্কবার্তা দেওয়া হয়েছে। গতকাল বিকেলের পর অভ্যন্তরীণ সব নৌপথে লঞ্চ-জাহাজ চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। দেশের সমুদ্রবন্দরগুলোর সব কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয়।

সাগরে সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে সুন্দরবনের দুবলারচরে রোববার থেকে শুরু হতে যাওয়া রাসমেলা বাতিল করেছে বাগেরহাট জেলা প্রশাসন।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ আবুল কালাম মল্লিক প্রথম আলোকে জানান, ঘূর্ণিঝড়টি শনিবার (আজ) সন্ধ্যার পর বাংলাদেশের উপকূল অতিক্রম করতে পারে। আঘাত হানার সময় এর গতিবেগ ঘণ্টায় ১২০ থেকে ১৪০ কিলোমিটার পর্যন্ত হতে পারে। ঝড়ের সঙ্গে থাকা মেঘমালার জন্য সোমবার পর্যন্ত দেশের উপকূলসহ বেশির ভাগ এলাকায় প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কারণে উপকূলের সাত জেলা খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, বরগুনা, পটুয়াখালী, পিরোজপুর ও ভোলায় সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। উপকূলের ১৪টি জেলায় ৫৬ হাজার স্বেচ্ছাসেবককে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এসব জেলার ঝুঁকিপূর্ণ স্থানে থাকা মানুষকে আজ সকাল থেকে আশ্রয়কেন্দ্রগুলোয় নিয়ে আসা হবে বলে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল আঘাত হানার ভয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন দেশের কৃষকেরা। দেশের ৫৫ লাখ হেক্টর জমিতে আমন ধান রয়েছে, যার মাত্র ২ শতাংশ পেকেছে। বাকি ধান এক-দুই সপ্তাহের মধ্যে পাকবে। আর দেশের উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের জেলাগুলোর মাঠে শীতকালীন সবজি রয়েছে। বিশেষ করে ফুলকপি, বাঁধাকপি, টমেটো, মুলা ও শাক রয়েছে। ঝড়ের সঙ্গে আসা বৃষ্টিতে এসব ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা আছে।

এ ব্যাপারে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. আবদুল মুঈদ প্রথম আলোকে বলেন, শীতকালীন সবজির ক্ষেত্রে বেশি সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। জমিতে যাতে বৃষ্টির পানি না জমে, সে জন্য নালা তৈরি করতে হবে। আধা পাকা ধান না কাটার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, কোনো এলাকায় সমস্যা বেশি হলে স্থানীয় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে।

পালাবদল/এমএম


  এই বিভাগের আরো খবর  
  সর্বশেষ খবর  
  সবচেয়ে বেশি পঠিত  


Copyright © 2019
All rights reserved
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]