বৃহস্পতিবার ১৪ নভেম্বর ২০১৯ ২৯ কার্তিক ১৪২৬
 
পরিবেশ
‘নদী ধ্বংস করা হয়েছে রাজনৈতিক ছত্রছায়ায়’
‘নদী ধ্বংস করা হয়েছে রাজনৈতিক ছত্রছায়ায়’





নিজস্ব প্রতিবেদক
Wednesday, Sep 11, 2019, 8:27 pm
Update: 11.09.2019, 8:27:57 pm
 @palabadalnet

ঢাকা: দেশের পরিবেশবাদিরা অভিযোগ করেছেন, দখল এবং দূষণ অব্যহত রেখে আইনের যথাযথ বাস্তবায়ন না করে চলমান উদ্ধার তৎপরতা দীর্ঘমেয়াদে নদী ও দেশের জন্য মারাত্মক অকল্যাণকর। প্রশাসন এবং রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় নদীগলোকে ধ্বংস করা হয়েছে। তারা এর সাথে জড়িত সকলের শাস্তির দাবী জানান।

বাংলাদেশের নদীরক্ষায় নিবেদিত সামাজিক সংগঠনসমূহের জোট ‘বিশ্ব নদী দিবস উদযাপন পরিষদ, বাংলাদেশ’ এর উদ্যোগে আজ এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করা হয়।

 ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি’র (সাগর-রুনি মিলনায়তন) সেগুণবাগিচা, ঢাকায় ‘বিশ্ব নদী দিবস ২০১৯ এর জাতীয় প্রতিপাদ্য ঘোষণা ও অনুষ্ঠান প্রস্তুতি বিষয়ে’ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্ব নদী দিবস উদযাপন পরিষদ বাংলাদেশ-এর আহ্বায়ক ডা. মোঃ আব্দুল মতিনের সভাপতিত্ব এবং পরিষদের সদস্য সচিব শেখ রোকনের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন, বুড়িগঙ্গা বাঁচাও আন্দোলনের সমন্বয়ক মিহির বিশ্বাস, ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশ-এর সমন্বয়ক শরীফ জামিল, স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আহম্মদ কামরুজ্জামান মজুমদার প্রমুখ। 

ডা. মো. আব্দুল মতিন তার লিখিত বক্তব্যে জানান এবারের নদীরক্ষা দিবসের মূল কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে নদীর জন্য পদযাত্রা। ২১ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে নয়টায় পুরাতন ঢাকার বাহাদুর শাহ পার্কের সামনে প্রথমে জমায়েত। এরপর সকাল ১১টায় পদযাত্রা শুরু করে বুড়িগঙ্গা নদীর পাড়ে সদরঘাট টার্মিনালে যেয়ে পদযাত্রা শেষ হবে।দুপুর ১২টায় টার্মিনালে সংক্ষিপ্ত জমায়েত ও বক্তব্য। 

অধ্যাপক  ড. আহম্মদ কামরুজ্জামান মজুমদার বলেন, আমাদের আভ্যন্তরীণ নদীর পাশাপাশি আন্তর্জাতিক নদীগুলোকেও রক্ষায় কাজ করতে হবে। প্রতি বছর গড়ে ১টি নদী ও ১৫টি খাল বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে। যা সারা বিশ্বের জন্য হুমকি।

মিহির বিশ্বাস বলেন, রাজনৈতিক কারণে দেশের নদীগুলো দিনি দিন ধ্বংস হচ্ছে যুগের পর যুগ ধরে। নদী উদ্ধার করায় শেষ কাজ নয়, নদীর জায়গা নদীকে ফিরিয়ে দিতে হবে। আমরা প্রবাহমান নদী চাই।

শরীফ জামিল বলেন, দেশের চলমান নদী উদ্ধার তৎপরতায় কোনো কোনো ক্ষেত্রে সরকারের দৃঢ়তা জাতীর মনে আশার সঞ্চার করেছে। কিন্তু এই উদ্ধার তৎপরতা নদীর সীমানা যথাযথভাবে চিহ্নিত না করে চালানোর কারণে এটি একটি ক্রুটিপুর্ণ উদ্যোগ। ফলে অধিকাংশ ক্ষেত্রে বড় বড় দখলদার চির স্থায়ী বৈধতা পাবার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। 

শেখ রোকন বলেন, নদী দখলদারদের বিরুদ্ধে কথা বলতে গেলে সাধারনত জনগণকে অনেক হুমকীর সম্মূখীন হতে হয়। সরকারের পাশাপাশি জনগণকেও নদী রক্ষায় কাজ করতে হবে। ফৌজদারি আইন ও সংশোধন করতে হবে। যেন দখলদাররা নদী কর্মীদের বিরুদ্ধে কোনো ভয়ভীতি দেখানোর মতো দুঃসাহস না পায়।

পালাবদল/এসএফ


  এই বিভাগের আরো খবর  
  সর্বশেষ খবর  
  সবচেয়ে বেশি পঠিত  


Copyright © 2019
All rights reserved
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]
সম্পাদক : সরদার ফরিদ আহমদ
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৩৭৩/৩২ ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, হাতিরপুল, কলাবাগান, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮-০১৮৫২-০২১৫৩২, ই-মেইল : [email protected]